• বৃহস্পতিবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ঝালকাঠি আজকাল
ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রীর সভাপতিত্বে বঙ্গবন্ধু ট্রাস্টের সভা বাংলাদেশ সবসময় ভারতের কাছ থেকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পায় কর ব্যবস্থাপনা তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর করতে হবে: প্রধানমন্ত্রী ১০ টাকায় টিকিট কেটে চোখ পরীক্ষা করালেন প্রধানমন্ত্রী আইসিওয়াইএফ থেকে পাওয়া সম্মাননা প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তান্তর শিক্ষা ব্যবস্থা যাতে পিছিয়ে না যায় সে ব্যবস্থা নিচ্ছি প্রধানমন্ত্রীর কাছে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল হস্তান্তর প্লিজ যুদ্ধ থামান, সংঘাত থামাতে সংলাপ করুন: শেখ হাসিনা হানিফের সংগ্রামী জীবন নতুন প্রজন্মের রাজনৈতিক কর্মীদের দেশপ্রেম ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উজ্জীবিত করবে মোহাম্মদ হানিফ ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা

কানের যেসব সমস্যা গুরুতর রোগের ইঙ্গিত দেয়

ঝালকাঠি আজকাল

প্রকাশিত: ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২  

কানের বিভিন্ন সমস্যায় ছোট-বড় অনেকেই ভোগেন। কানে ব্যথা, চুলকানি, পানি ঢুকে যন্ত্রণা, শোঁ শোঁ শব্দ করা কিংবা সংক্রমণের মতো সমস্যা দেখা যায়। তবে এসব সমস্যাও কিন্তু শারীরিক বিভিন্ন রোগের ইঙ্গিত দেয়।

আসলে শরীরের অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন সমস্যার লক্ষণও ফুটে ওঠে কানে। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক কানের কোন সমস্যা কী কী রোগের ইঙ্গিত দেয়-

>> কানের লতিতে ভাঁজ দেখা যায় অনেকেরই। একে ফ্রাঙ্কের চিহ্নও বলা হয়। এটি আসলে হৃদরোগের লক্ষণ। যদিও বিজ্ঞানীরা জানেন না যে, ঠিক কী কারণে কানের লতিতে ভাঁজের সৃষ্টি হয়। তবে এই ভাঁজ থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

>> কানে শব্দ হওয়া বা টিনিটাস মূলত ঠান্ডা লাগলে কিংবা কানে ওয়াক্স বেড়ে গেলে হতে পারে। এক্ষেত্রে শোঁ শোঁ শব্দ হয় কানের ভেতরে। তবে এই শব্দ হওয়ার কারণ জয়েন্ট সম্পর্কিতও হতে পারে। যদি শোঁ শোঁ, গর্জন বা হিস হিস শব্দ শুনতে পান তাহলে দ্রুত ডাক্তার দেখান।

>> কানে বিভিন্ন কারণে চুলকাতে পারে। তবে ছত্রাক সংক্রমণ বা অন্যান্য কারণে কানের জ্বালাপোড়া বা চুলকানিভাব হয়। এর আরেকটি সম্ভাব্য কারণ হলো সোরিয়াসিস।

ইমিউন সিস্টেমে সমস্যা হলে এই রোগ বেড়ে যায়। কানে সোরিয়াসিসের ঘা হলে শ্রবণশক্তিও কমতে পারে। সোরিয়াসিসের কোনো প্রতিকার নেই। তবে নিয়ম মেনে চললে তা নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়।

>> কান বা গলার র সংক্রমণ, কানের মোম বা তরল জমা, দাঁত ব্যথার কারণেও কানে ব্যথা হতে পারে। তবে যদি এই ব্যথা একদিনের মধ্যে ভালো না হয় তাহলে ডাক্তার দেখান।

এর সঙ্গে যদি জ্বর, বমি, গলা ব্যথা, কান থেকে তরল বের হওয়া বা এর চারপাশে ফুলে যাওয়ার মতো লক্ষণ দেখেন তাহলে তা গুরুকর সমস্যার লক্ষণ হতে পারে। শিশুদের ক্ষেত্রে এ সমস্যা বেশি দেখা দিতে পারে। তাই সতর্ক থাকুন।

ঝালকাঠি আজকাল