• শনিবার   ১৬ অক্টোবর ২০২১ ||

  • আশ্বিন ৩০ ১৪২৮

  • || ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ঝালকাঠি আজকাল

দেশের একমাত্র ঘোড়ার হাট

ঝালকাঠি আজকাল

প্রকাশিত: ৭ অক্টোবর ২০২১  

ধান, পাট, গম, গরু, ছাগল, হাস- মুরগীসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কেনা বেচার হাট জামালপুর জেলার বিভিন্নস্থানে থাকলেও জেলা সদরের তুলশীপুর ডিগ্রি কলেজ মাঠে বসছে ঘোড়া ও ঘোড়ার গাড়ি বিক্রির হাট। 

মহামারী করোনার ধকল কাটিয়ে আবারো আস্তে আস্তে জমে উঠছে জামালপুরে দেশের একমাত্র ঘোড়া হাট। ক্রেতা-বিক্রেতাদের ভিড় থাকলেও ঘোড়ার দাম নিয়ে হতাশায় পড়েছে বিক্রেতারা। বিক্রেতারা বলছেন, ক্রেতারা যে দাম হাঁকছেন তাতে খরচও উঠছে না। দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে ঘোড়া বিক্রি করতে প্রতি সপ্তাহে এ হাটে ভিড় করেন ক্রেতা বিক্রেতারা।

তুলশীপুর ডিগ্রি কলেজ মাঠে বসছে ঘোড়া ও ঘোড়ার গাড়ি বিক্রির হাট। 

জামালপুর সদর উপজেলার বাঁশচড়া ইউপির তুলশীচর ডিগ্রি কলেজ মাঠে সপ্তাহের বৃহস্পতিবার ঘোড়ার হাট বসে। দেশের একমাত্র এই ঘোড়ার হাটে বিভিন্ন জেলা থেকে ঘোড়া কেনা বেচা করতে আসেন ঘোড়া প্রেমিরা। সেই সঙ্গে কেনা বেচা হয় ঘোড়ার গাড়ি। করোনার ভয়াবহতায় বন্ধে করে দেয়া হয়েছিল ঘোড়ার হাট। আবারো শুরু শুরু হয়েছে ঘোড়া ও ঘোড়ার গাড়ি বেচা কেনা। তবে দাম অনেক কম হওয়ায় ঘোড়া বেচা কেনায় লোকসানে পড়েছেন ঘোড়ার মালিক ও ব্যবসায়ীরা।

ব্যবসায়ীরা জানান, করোনার পর হাটে ঘোড়ার দাম কমে গেছে। ক্রেতারা যে দাম হাঁকছেন তাতে খরচ উঠছে না। ভূষি ঘাসের দাম বেশি হওয়ায় ঘোড়া বিক্রি করে লোকসানে পড়ছেন। ঘোড়া কেনা বেচায় শারীরিক শক্তি পরীক্ষা করে নেয়া হয়। মাঠে কাঁদামাটি তৈরি করে ঘোড়ার উপরে উঠে কাঁদা দিয়ে ঘোড়া নিয়ে পরীক্ষা হয় শারীরিক শক্তি।

তুলশীপুর ডিগ্রি কলেজ মাঠে বসছে ঘোড়া বিক্রির হাট। 

সপ্তাহে একদিন প্রতি বৃহস্পতিবার বসে ঘোড়া হাট। বগুড়া, গাইবান্ধা, রংপুর , কুড়িগ্রাম, শেরপুরসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ঘোড়া নিয়ে আসনে বিক্রেতারা।বিক্রেতা ও ক্রেতারা এ হাটে ঘোড়া বিক্রি করতে পেরে খুশি। হাটের নিরাপত্তা থাকা খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থাপনা ভালো বলে মনে করছেন।

গাইবান্ধার থেকে আসা ঘোড়া বিক্রেতা লিয়াকত আলী বলেন, ৫ বছর ধরে এই হাটে ঘোড়া বিক্রি করছি। যমুনা নদী পাড় হয়ে ভটভটি যোগে এই হাটে আসতে কোন অসুবিধা হয় না। এ বছর করোনার কারণে বেচা কেনা ভালো না। এছাড়া ঘোড়ার খাদ্য ভূষির দাম বেশি। ঘাস কিনে ঘোড়া লালন পালনে অনেক খরচ। হাটে যে দামে ঘোড়া কেনা বেচা হচ্ছে তাতে লোকসানে পড়ছেন।

বগুড়ার রহিম বলেন, ঘোড়ার দাম একেবারে পড়ে গেছে। ২০ হাজার টাকা ঘোড়া ৫ হাজার টাকা দাম করে। রাজধানীর সদর ঘাট থেকে আসা সুরুজ মিয়া বলেন, ঘোড়াসহ গাড়ি বিক্রির জন্য হাটে এসেছি। যে দাম হাঁকছেন তাতে খরচও উঠবে না। এ হাটে ঘোড়া বিক্রি না করেই চলে যেতে হচ্ছে।

তুলশীপুর ডিগ্রি কলেজ মাঠে বসছে ঘোড়া ও ঘোড়ার গাড়ি বিক্রির হাট। 

জামালপুর সদর উপজেলার বাঁশচড়া ইউপির তুলশীচর ডিগ্রি কলেজ মাঠে ঘোড়ার হাটে শতাধিক ঘোড়া বাজারে আসে। প্রতিহাটে ২০ থেকে ২৫ টি ঘোড়া কেনা বেচা হয়।

হাটের ইজারাদার ফারুক আহম্মেদ জানান, ঘোড়ার হাটে প্রচুর ঘোড়া কেনা বেচা হয়। সপ্তাহে একদিন প্রতি বৃহস্পতিবার হাট বসে। সকালে থেকেই দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে ঘোড়া নিয়ে আসেন বিক্রেতারা। তাদের নিরাপত্তাসহ সব ব্যবস্থা হাট পরিচালনা কমিটি করে থাকে। ক্রেতা বিক্রেতারা সবাই এই হাটের ব্যবস্থাপনায় খুশি। প্রতি হাটে ২০-৩০ টি ঘোড়া বিক্রি হয়। এতে প্রতি হাটে ৩ থেকে ৪ লাখ টাকার ঘোড়া কেনা বেচা হয়।

তুলশীপুর ডিগ্রি কলেজ মাঠে বসছে ঘোড়া ও ঘোড়ার গাড়ি বিক্রির হাট। 

এছাড়াও আশপাশে জেলায় কোন ঘোড়া কিংবা ঘোড়াগাড়ি বেচাকেনার হাট না থাকায় দিন দিন এ হাটের খবর চারদিকে ছড়িয়ে পড়ছে। সেই সঙ্গে বাড়ছে বেচাকেনার চাহিদাও। করোনার ধকল কাটিয়ে পুরো দমে বেচাকেনা হবে বলেও একাধিক ব্যবসায়ী ও ক্রেতা বিক্রেতারা জানান।

ঝালকাঠি আজকাল