• সোমবার   ২৭ জুন ২০২২ ||

  • আষাঢ় ১২ ১৪২৯

  • || ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪৩

ঝালকাঠি আজকাল
ব্রেকিং:
বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতেও ডোপ টেস্ট : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ১০০ বছরেও কোনও ক্ষতি হবে না পদ্মা সেতুর: মন্ত্রিপরিষদ সচিব বাঙালি জাতির সমস্ত অর্জন আওয়ামী লীগের হাত ধরে এসেছে: তথ্যমন্ত্রী সংক্রমণ বাড়ছে, শিগগির বুস্টার ডোজ নিন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে আরো শক্তিশালী করতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জুরাইনের ঘটনায় যার যতটুকু অপরাধ, তার বিচার হবে: আপিল বিভাগ সেবা সহজ করতে নিরাপদ আইটি অবকাঠামো জরুরি: প্রতিমন্ত্রী মাঙ্কিপক্স সন্দেহে তুরস্কের এক নাগরিক হাসপাতালে বাংলাদেশ ব্লকচেইন প্রযুক্তিতে বিশ্বকে নেতৃত্ব দেবে: পরিকল্পনামন্ত্রী সীতাকুণ্ডে বিস্ফোরণ নাশকতা কি না, খতিয়ে দেখা হবে: তথ্যমন্ত্রী

বিজয় দিবসে ঢাকায় চলবে প্রথম মেট্রোরেল

ঝালকাঠি আজকাল

প্রকাশিত: ২৫ মে ২০২২  

অনেক পিছিয়েছে, আর নয়। আগস্টে সমন্বিত টেস্টিং শেষে ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় দিবসে বাণিজ্যিকভাবে ঢাকায় চলবে দেশের প্রথম মেট্রোরেল-এমআরটি লাইন সিক্সের প্রথম অংশ। ঠিক এক বছর পরই আগারগাঁও থেকে মতিঝিলের বাকি অংশও চালু হয়ে যাবে।

মোট ১৬টি মেট্রো স্টেশনের ৯টি আগারগাঁও থেকে দিয়াবাড়ি অংশে। স্টেশনের মূল ভবনের ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ শেষ হয়েছে বেশ আগেই। দ্বিতীয় ও তৃতীয়তলায় উঠতে দুটি করে সিঁড়ি, এক্সেলেটর ও লিফট বসানোও প্রায় শেষ।

এক্সিট, এন্ট্রি ও টিকেটিংয়ের সব ধরনের যন্ত্রপাতি বসানোর কাজ চলছে সমানে।

তৃতীয়তলার প্ল্যাটফর্মে ওয়েটিং জোন আলাদা করতে আঁকা হয়েছে ইয়েলো বার। নির্দিষ্ট দূরত্বে নির্ধারিত মাপের উচ্চ প্রযুক্তির দরজাও বসানো হচ্ছে।

অন্যান্য সাধারণ স্টেশনের অবকাঠামো যেমন হয় মেট্রোরেল স্টেশনের কাঠামো ঠিক এরকম যে, এই অংশে যাত্রীরা অপেক্ষা করবে আর হলুদ লাইনটি তারা কখনই অতিক্রম করবে না। এখানের স্বয়ংক্রিয় দরজাটিও বন্ধ থাকবে। রেল এসে দাঁড়ানোর পরে এই দরজাটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে খুলে যাবে। তখন যাত্রীরা ট্রেনে ওঠার সুযোগ পাবেন। যখন যাত্রী ওঠা শেষ হবে দরজাটি আবার বন্ধ হয়ে যাবে।

চলতি বছরের আগস্টে এই অংশের সব কাজ শেষ করার ডেটলাইনে এগোচ্ছে প্রকল্প বাস্তবায়নকারী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানগুলো।

ডিএমটিসিএল ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম এ এন ছিদ্দিক বলেন, “স্টেশনের যে রুট সিট আছে এর নীচের দিকের সব কাজ শেষ করা হয়েছে। কোন কোন জায়গায় ফাইন টিউনের কাজ সামান্য বাকি থাকতে পারে। সেগুলোও জুনের মধ্যে শেষ হবে।”

এদিকে, সিগন্যালিং ঠিকমতো হচ্ছে কি-না তার পুঙ্খানুপুঙ্খ পরীক্ষা-নিরীক্ষায় দম ফেলার ফুরসত নেই প্রকৌশলীদের। নিয়মিত উত্তরা-আগারগাঁও পরীক্ষামূলক চলাচল করছে মেট্রোরেল।
 
বিদ্যুৎচালিত এই মেট্রো চলবে নিজস্ব স্বয়ংক্রিয় সিগন্যালিং সিস্টেমে। এরইমধ্যে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসির অনুমোদনও পেয়েছে ঢাকা ম্যাস ট্র্যানজিট কোম্পানি-ডিএমটিসিএল।

এম এ এন ছিদ্দিক বলেন, “ইন্ডিপেনডেন্ট একটা নেটওয়ার্ক সিস্টেম থাকবে, না হলে মেট্রোরেল সঠিকভাবে পরিচালনা করা যায় না। সেটার এখন টেস্টিং কাজ আমরা করছি।”

বলা হচ্ছে, উত্তরা-আগারগাঁও এই অংশের ৯২ শতাংশ কাজ শেষ করে আনা হয়েছে। সামনে কোনো জটিলতা না থাকায় শতভাগ কাজ শেষ করে আগস্টেই হবে সমন্বিত টেস্টিং।

এম এ এন ছিদ্দিক বলেন, “৩০ এপ্রিল পর্যন্ত সার্বিক অগ্রগতি হচ্ছে ৭৮.৯৫ শতাংশ। আর উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত অগ্রগতি হচ্ছে ৯২.০২ শতাংশ।”

কাজের গতি বাড়াতে বাড়তি জনবলও নিয়োগ করা হয়েছে প্রকল্পে।

পরীক্ষামূলক হলেও বেশ কিছুদিন থেকেই নগরে চলছে মেট্রোরেল। স্টেশন ও লাইনগুলোতে বাদবাকি যে কাজগুলো রয়েছে তা আগস্টের মধ্যেই শেষ করার পরিকল্পনা সংশ্লিষ্টদের। তখন একটি ইন্টিগ্রেটেড টেস্ট করা হবে, বোঝা হবে সবকিছু ঠিক মতো কাজ করছে কিনা। আর ১৬ ডিসেম্বর দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে ঢাকায় চলবে মেট্রোরেল।

ঝালকাঠি আজকাল