• সোমবার   ০৮ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৩ ১৪২৯

  • || ০৮ মুহররম ১৪৪৪

ঝালকাঠি আজকাল

বাংলাদেশের জনগণ আমার সাহসের ঠিকানা: প্রধানমন্ত্রী

ঝালকাঠি আজকাল

প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০২২  

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পদ্মা সেতু নির্মাণ করতে গিয়ে এদেশের মানুষের সর্বাত্মক সহযোগিতা পেয়েছি। দুর্নীতির অভিযোগে যখন বিশ্বব্যাংক বিনিয়োগ থেকে সরে দাঁড়ায় তখন আমি সংসদে দাঁড়িয়ে ঘোষণা দিয়েছিলাম নিজেদের অর্থে আমরা পদ্মা সেতু নির্মাণ করব। আমার এ ডাকে দেশের মানুষে সারা দিয়েছে। এ জন্য বাংলাদেশে জনগণ আমার সাহসের ঠিকানা। আমি বাংলাদেশের মানুষকে স্যালুট জানাই।

শনিবার (২৫ জুন) পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে দেওয়া ভাষণে তিনি এ কথা বলেন। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৩ সালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাপানে সফর করেন। তখন তিনি জাপান সরকারের কাছে যমুনা ও পদ্মা নদীর উপর সেতু নির্মাণের জন্য অনুরোধ জানান। কিন্তু দুঃখের বিষয় ১৯৭৫ সালে জাতির পিতাকে স্বপরিবারে হত্যা করার ফলে এ কাজ থেমে যায়। এরপর যারা ক্ষমতায় আসে তারা নিজেদের আখের গোছানোর কাজই করে। ১৯৯৬ সালে সরকার গঠন করে যমুনার উপর সেতু নির্মাণের কাজ সম্পন্ন করি এবং ১৯৯৮ সালে এ সেতুন উদ্বোধন করি। 

শেখ হাসিনা বলেন, ১৯৯৭ সালে জাপানে সফর করে সে দেশের সরকারের কাছে রুপসা ব্রিজ এবং পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য জাপান সরকারের কাছে আহবান জানাই। জাপান সরকার পরবর্তীতে পদ্মা সেতু নির্মাণের জন্য নদীর উপর ফিজিবিলিটি পরীক্ষা করে। কিন্তু ২০০০ সালে বিএনপি ক্ষমতায় আসার কারণে পদ্মা সেতুর কাজ থেমে যায়। কিন্তু রুপসা সেতু জাপান সরকার নির্মাণ শেষ করে। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর পুনরায় পদ্মা সেতু নির্মাণ নিয়ে কাজ শুরু করি। শেষ পর্যন্ত সবার সহযোগিতায় আমরা সফল হয়েছি। আজ আমার কোনো অভিযোগ নেই। যারা এর বিরোধীতা করেছে তাদের বুদ্ধির স্বল্পতা ছিল বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী। 

ঝালকাঠি আজকাল