• রোববার ২৩ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৯ ১৪৩১

  • || ১৫ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

ঝালকাঠি আজকাল

প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেয়ে ভাগ্য বদলেছে ২১০০ পরিবারের

ঝালকাঠি আজকাল

প্রকাশিত: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

ঝালকাঠি প্রতিনিধি: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া ২ শতক জমিসহ ঘর পেয়ে বদলে গিয়েছে ঝালকাঠি জেলার ২১০১টি ভূমিহীন-গৃহহীন পরিবারের জীবনযাত্রা। ভাগ্য বদলে গিয়েছে বাসস্থান ও কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হওয়ায়। ঘরের সামনের খোলা জায়গায় কেউ করছেন পশু পালন, কেউ ক্ষুদ্র ব্যবসা, কেউ বা কৃষি কাজ করে হয়েছেন স্বনির্ভর। স্বস্তির জীবন পেয়ে খুশি এসব ছিন্নমূল মানুষ।
বয়সের ভারে নুহ্য ঝালকাঠির ৭০ বছর বয়সী সাফিয়া বেগম। প্রধানমন্ত্রীর ঘর পেয়ে জীবনের গল্পটাই যেন বদলে গিয়েছে তার। ছিল না তার কোন জায়গা জমি, থাকতেন বস্তিতে আর মানুষের বাসায় কাজ করে চালাতেন সংসার। প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার পেয়ে তাই আবেগআপ্লুত সাফিয়া বেগম। একই রকম অভিব্যক্তি আশ্রয়ন প্রকল্পে ঘর পেয়ে সেখানেই মুদি দোকান চালু করা রহিম মিঞার। এক সময় ছিল না তার কোন ভূমি কিংবা ঘর। দিনমজুরের কাজ করে ৪ সদস্যের সংসার চালাতে হিমশিম খেতে হতো তাকে। বিনামূল্যে জমিসহ ঘর পাবেন তিনি তা কোনদিন ভাবতেও পারেন নি তিনি। তাই আশ্রয়ণ প্রকল্পে ঠাঁই এবং সেখানেই ব্যবসা শুরু করতে পেরে ভিষন খুশি সে।
সাফিয়া বেগম বলেন, আমার থাকার কোন জায়গা জমি ছিলো না। মানুষের বাড়িতে কাজ করে কোন ভাবে খেয়ে না খেয়ে থাকতাম। এখন প্রধানমন্ত্রী ঘর দেছে,জমি দেছে। আমার নিজের ঘর জমি পেয়েছি। আমি অকেন ভালো আছি। আমার এখন আছে প্রধানমন্ত্রী আর আল্লাহ।
সাফিয়া বেগম মত এভাবেই ২ শতক জমিসহ ঘর পেয়ে নতুন নতুন স্বপ্ন বুনতে শুরু করেছে ঝালকাঠির বিভিন্ন আশ্রয়ণ প্রকল্পে বাসিন্দারা। কেউ ঘরের আঙিনায় পালছেন গরু-ছাগল,কেউ হাঁস-মুরগী। কেউ কেউ কৃষি কাজ করে নিজের পরিবারের খাদ্যের যোগানের পাশাপাশি তা বিক্রির মাধ্যমে অর্থ উপার্যনও করছেন।
আশ্রয়ণের বাসিন্দাদের সুপেয় খাবার পানি ও নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যবস্থাসহ সম্ভাব্য সকল সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। প্রান্তিক এ জনগোষ্ঠির জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে নানা রকম প্রকল্প গ্রহন করা হচ্ছে বলে জানান ঝালকাঠি সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাবেকুন নাহার ।
আশ্রয়ণ-২ প্রকল্পের আওতায় ঝালকাঠি জেলায় প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ পর্যায়ে মোট ২১০১ টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার পেয়েছেন জমিসহ ঘর। গত ০৯ আগস্ট ঝালকাঠি সদর উপজেলার ১৮৭টি পরিবারের মাঝে ঘর বিতরণের মাধ্যমে ঝালকাঠি জেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীনমুক্তও ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
জেলা প্রশাসক ফারাহ্ গুল নিঝুম জানিয়েছেন, এ সকল উপকারভোগীদের ভূমি ও ঘর দেয়ার পাশাপাশি বিভিন্ন প্রশিক্ষন দেয়া হচ্ছে যাতে তারা স্বাবলম্বী হতে পারে।
ভূমিহীন-গৃহহীন ছিন্নমূল আশ্রয়ণ প্রকল্পে ঘর পেয়ে মুখে ফুটেছে হাসি। প্রধানমন্ত্রীর উপহার পেয়ে আজ তাদের নিজেদের একটা ঠিকানা হয়েছে। যেটি তাদের জীবনসংগ্রাম এগিয়ে নিতে জীয়নকাঁঠির মতো কাজ করছে। উন্নয়নের মূলস্রোতে ফিরে মানসম্মত জীবন-যাপনের মাধ্যমে আত্মমর্যাদাশীল নাগরিকে পরিণত হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে।

 

ঝালকাঠি আজকাল