• বুধবার   ১৪ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ১ ১৪২৮

  • || ০১ রমজান ১৪৪২

ঝালকাঠি আজকাল
ব্রেকিং:
শান্তিরক্ষীদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণের বিকল্প নেই : প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে শান্তি নিশ্চিত করাটাই চ্যালেঞ্জ: প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ স্বীকৃতি পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাবর্তন জলবায়ু কূটনীতিতে নতুন গতির সঞ্চার হবে প্রিন্স ফিলিপের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ সরকার গঠিত হয় একাত্তরের ১০ এপ্রিল ডি-৮ সদস্য দেশগুলোর মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়াতে হবে:প্রধানমন্ত্রী করোনার ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে ডি-৮ এর প্রতি প্রধানমন্ত্রী আহ্বান আজ বৈঠকে বসছেন ডি-৮ শীর্ষ নেতারা মানুষ বাঁচাতে আরও কঠোর পদক্ষেপ নিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

স্মার্টফোনে ভিডিও এডিটের সেরা ৫ অ্যাপ

ঝালকাঠি আজকাল

প্রকাশিত: ৫ এপ্রিল ২০২১  

স্মার্ট‌ফোন এখন শুধু ফটোগ্রাফিই নয়, ভিডিওগ্রাফির কাজেও জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বিভিন্ন অনলাইন প্ল্যাটফর্মে একের পর এক ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে; যেগুলো স্মার্টফো‌নে ধারণ ও এডিট করা। একটি স্মার্ট‌ফোন হাতে থাকলে আপ‌নিও হ‌য়ে যেতে পা‌রেন ভি‌ডিও এডিটর! প্রশ্ন হচ্ছে, কোন অ্যাপে এডিট করবেন?

প্লে-স্টোরে খুঁজলে ভিডিও অ্যা‌পের অভাব হবে ন‌া। তবে মান ও সুযোগ-সুবিধার দিক থেকে বে‌শ কিছু অ্যাপ ব্যবহারের শীর্ষে রয়েছে। অ্যানড্রয়েড ফোনের জন্য সবচেয়ে ভালো পাঁচটি ভিডিও এডিটিং অ্যাপ সম্পর্কে জেনে‌ নিন—

অ্যাডোবি প্রিমিয়ার রাশ

অ্যাপটি খুব কম সময়ের মধ্যে বেশ সাড়া জাগিয়ে‌ছে। যেকোনো জায়গায় খুব সহজেই অ্যাডোবি প্রিমিয়ার রাশ ব্যবহার করতে পারবেন। এ অ্যাপে ক্লাউড সার্ভিস থাকায় আপনার স্মার্টফোন হারিয়ে গেলেও এ অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন। আপনার ভিডিওকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে এ অ্যাপে বেশকিছু ফিচার রয়েছে। এমনকি অ্যাপটির ফ্রি ভার্সনেও ওয়াটারমার্ক নেই।

কাইনমাস্টার

ছোট ভিডিও ক্লিপ বা জীবনের মজার কোনো মুহূর্তের ভিডিও এডিটের ক্ষেত্রে এ অ্যাপ আপনার জন্য কার্যকর। এতে কালার ফিল্টার, টেক্সট কিংবা ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক যোগ করার সুবিধাও আছে। এতে ক্রোমা কি নামের একটি ফিচার রয়েছে, যেটি দিয়ে যেকোনো ছবির পেছনের রঙ পরিবর্তন করে পছন্দের রঙ ব্যবহার করা যাবে। এছাড়াও এর ইউজার ইন্টারফেজ ব্যবহারকারীদের জন্য খুবই সাবলীল।

ফিল্মোরা গো

ফিল্মোরা গো ব্যবহার করা খুবই সহজ। অ্যাপটির মাধ্যমে ট্রিম, কাট, মিউজিক ও থিম যোগ করাসহ আরো অনেক কাজ করা সম্ভব। এর মাধ্যমে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ভিডিও সাইজ অনুযায়ী এডিট করা যায়।

অ্যাকশন ডিরেক্টর

সহজে ভিডিও এডিটের অন্যতম একটি অ্যাপস হলো অ্যাকশন ডিরেক্টর। গুগল প্লে স্টোরের এডিটরস চয়েসের মধ্যে অন্যতম হলো এ অ্যাপ। কালার অ্যাডজাস্টমেন্ট, ফিল্টার, টেক্সট, ট্রানজিশন, ফাস্ট ও স্লো মোশনসহ নানা সুবিধা রয়েছে এ অ্যাপসে।

ম্যাজিস্টো

ম্যাজিস্টোতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সুবিধা থাকায় ভিডিওতে কোন অংশ ব্যবহার করা প্রয়োজন, সেটি সহজেই নির্ধারণ করা যাবে। এডিটিংয়ের মাধ্যমে ভিডিওকে জটিল করতে না চাইলে এ অ্যাপস আপনার জন্য উপযুক্ত। এখানে আপনি শুধু ভিডিওর ধরন, ক্লিপ, অডিও এবং মিউজিক নির্ধারণ করে দেবেন। বাকি কাজ ম্যাজিস্টোই করে দেবে।

ঝালকাঠি আজকাল