মঙ্গলবার   ১২ নভেম্বর ২০১৯   কার্তিক ২৮ ১৪২৬   ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

ঝালকাঠি আজকাল

লন্ডনে ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল মার্কেট ফেয়ারে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ

প্রকাশিত: ৬ নভেম্বর ২০১৯  

লন্ডনের অভিজাত ভেনু এক্সেল সেন্টারে থেকে শুরু হয়েছে বিশ্বের পর্যটন খাতের বড় আয়োজন ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল মার্কেট ফেয়ার। আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশে পর্যটন শিল্পকে আরও বৃহত্তর পরিসরে তুলে ধরতে অংশ গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ। আর এ মেলায় অংশগ্রহণের মাধ্যমে বিদেশি পর্যটকদের মাঝে বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পের বিকাশ হবে এবং পর্যটকদের একটা ধারণা আসবে বলে জানান বাংলাদেশ থেকে অংশগ্রহণকারীরা।


এ মেলায় অংশগ্রহণ করায় পর্যটন বিকাশে দূরত্ব কমিয়ে আনার ক্ষেত্রে অনেকটা সহায়ক হবে বলে জানান বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রালয়ের কর্মকর্তা অতিরিক্ত সচিব মো. আতিকুল হক।

লন্ডনের অভিজাত ভেনু এক্সেল সেন্টারে সোমবার (৪ নভেম্বর) থেকে শুরু হয়েছে বিশ্বের পর্যটন খাতের বড় আয়োজন ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল মার্কেট ফেয়ার। এবারের ৪০তম আয়োজন পরিণত হয় বিশ্বের পর্যটন শিল্প সংশ্লিষ্টদের মিলন মেলায়। এতে ১৮২টি দেশের প্রায়ই ৫ হাজার প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। এরই অংশ হিসেবে নবমবারের মতো অংশ নিয়েছে বাংলাদেশ।

ওয়ার্ল্ড ট্রাভেল মার্কেট ফেয়ারে আগতদের মাঝে বাংলাদেশের পর্যটন খাতের বিশেষত্ব তুলে ধরতে যৌথভাবে বিশেষ উদ্যোগ নেয় যুক্তরাজ্যের বাংলাদেশ হাইকমিশন, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ড। চোখ জুড়ানো নানা প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে আকৃষ্ট করার মতো অপার সম্ভাবনাময় থাকলেও বাংলাদেশ বিদেশি পর্যটকদের নজর কাড়তে সক্ষম হচ্ছে না বলে মনে করছেন আগত বিদেশিরা।

আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশে পর্যটন শিল্পকে আরও বৃহত্তর পরিসের তুলে ধরা প্রয়োজন বলে মনে করেছেন ঢাকা রিজেন্সি হোটেলের চেয়ারম্যান মুসেলহ আহেমদ ও প্যাসিফিক এশিয়া ট্রাভেল অ্যাসোসিয়েশন সভাপতি বাংলাদেশ চ্যাপ্টার শহীদ হামিদ।

পার্শ্ববর্তী দেশগুলো থেকে বাংলাদেশে পর্যটন খাতে বেশ পিছিয়ে আছে। আগতদের আকৃষ্ট করতে মেলায় বাংলাদেশি শিল্পীদের অংশগ্রহণে ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

এই বিভাগের আরো খবর