বৃহস্পতিবার   ০৫ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২১ ১৪২৬   ০৭ রবিউস সানি ১৪৪১

ঝালকাঠি আজকাল
১৯

বাংলা টাইগার্সের জয়রথ ছুটছেই

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০১৯  

আবুধাবি টি-১০ ক্রিকেট লীগে প্রথমবারের মতো অংশ নিয়ে বাজিমাত করছে বাংলাদেশের দল বাংলা টাইগার্স। নদার্ন ওয়ারিয়র্সকে ৬ রানে হারিয়ে সুপার লীগে টানা দুই ম্যাচে জয় পেয়েছে থিসারা পেরেরার দল।

টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে টাইগার্সের দুই ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার ও রিলে রুশোর শুরুটা ধীরগতিতে হলেও ইনিংসের দ্বিতীয় ওভার থেকে চেনারূপে ফেরেন দু’জনেই। নুয়ান প্রদীপের করা দ্বিতীয় ওভারে পরপর ছয়-চার হাঁকিয়ে ঝড়ো ইনিংসের শুরুটা করেন ফ্লেচার।

তৃতীয় ওভারে দু’জন মিলে চার-ছক্কা ছাড়াই ১০ রান সংগ্রহ করার পর চতুর্থ ওভারে রায়াদ ইমরিতের বল টানা দু’বার বাউন্ডারির বাইরে পাঠিয়ে রুশোও জানান দেন রানের গতিতে ঝড় তুলতে তিনিও কম যান না।

তবে ম্যাচের পঞ্চম ওভারে ক্রিস উডের বল ক্রিস গ্রিনের হাতে ক্যাচ দিয়ে রুশো ফিরে গেলে ৪৬ রানেই ভেঙে যায় ফ্লেচার-রুশোর উদ্বোধনী জুটি। যেখানে ৩টি চারে সাজানো ১৫ বলে ২১ রানের ইনিংস ছিল তার।

রুশো সাজঘরে ফেরার পর মাঠে বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেননি ফ্লেচারও। ১৫ বলে ২২ রান নেওয়া এ হার্ড হিটার ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফিরে যান পরের ওভারে রায়াদ ইমরিতের প্রথম বলেই।

ছবি: সংগৃহীতএরপর কলিন ইংগ্রাম, টম মোরেস, থিসারা পেরেরা, ডেভিড উইসে টাইগার সমর্থকদের আশা জাগিয়ে মাঠে নামলেও প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেননি কেউই। যার প্রভাব পড়ে বাংলা টাইগার্সের স্কোর বোর্ডে।
তবে রবি ফ্রাইলিংকের ১২ বলে ৩৬ রানের হার না মানা ইনিংসের কারণে ১০০ রান পূর্ণ করে বাংলা টাইগার্স। নদার্ন ওয়ারিয়র্সকে ১০২ দুই রানের সম্মানজনক টার্গেট দেয় টাইগাররা।
টার্গেট তাড়া করতে নেমে লেন্ডল সিমন্স ঝড়ো ইনিংসের সূচনা করলেও বেশি দূর আগাতে পারেননি তিনি। কয়েস আহমেদের বলে রিলে রুশোর হাতে ক্যাচ দেওয়ার আগে ১৩ বলে ১৫ রান সংগ্রহ করেন সিমন্স।

এরপর এক আন্দ্রে রাসেল ছাড়া ফ্রাইলিংক, উইসে, প্ল্যাংকেট, কায়েস আহমেদের বোলিং তোপের পড়ে মাঠে বেশিক্ষণ দাঁড়াতে পারেননি নদার্ন ওয়ারিয়র্সের কোনো ব্যাটসম্যানই। এতেই কপাল পুড়ে ড্যারেন স্যামির দলের।

সুপার লীগের প্রথম ম্যাচে দিল্লি বুলসকে ছয় উইকেটে হারালেও বুধবার (২০ নভেম্বর) দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলা টাইগার্সের কাছে ৬ রানে হারতে হয় তাদের।  

এই বিভাগের আরো খবর