বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৬ ১৪২৬   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

ঝালকাঠি আজকাল
৭৫৭

বহিষ্কৃত মঞ্জুর রাজনৈতিক প্রচেষ্টায় শঙ্কিত ও বিব্রত জামায়াত

প্রকাশিত: ৫ মে ২০১৯  

জামায়াতের বহিষ্কৃত নেতা মজিবুর রহমান মঞ্জুর নেতৃত্বে নতুন রাজনৈতিক দল গড়ার ঘোষণায় বেশ সতর্ক ও কৌশলী অবস্থান নিয়েছে জামায়াতে ইসলামী। এদিকে, মঞ্জু দলের যে ক্ষতি করেছেন তার ব্যাপকতা রুখতে দল কঠোর অবস্থান গ্রহণ করেছে বলে জানিয়েছেন দলটির একাধিক দায়িত্বশীল নেতা। মঞ্জু কার ইশারায় জামায়াতকে চ্যালেঞ্জ করে নতুন রাজনৈতিক দল গঠন করেছেন তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলেও জানা গেছে।

এ বিষয়ে জামায়াতের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির অধ্যাপক গোলাম পরওয়ার বলেন, মঞ্জু সংস্কারপন্থীদের নিয়ে নতুন সংগঠন তৈরি করে জামায়াতকে বিব্রত করেছেন।মঞ্জু এক ধরণের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছেন জামায়াতকে। গোপনে ওই সংগঠনটি জামায়াতের প্রভাবশালী নেতাদের হাত করার চেষ্টা চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ পেয়েছি। আমরা যেকোনো মূল্যে এই ধরণের অপচেষ্টা রুখে দেব। জামায়াতকে নিয়ে রাজনৈতিক খেলা বন্ধ করতে যা যা করার দরকার, আমরা তা-ই করবো।

তিনি আরো বলেন, জামায়াতে ইসলামীকে ভাঙতে দীর্ঘদিন ধরে সক্রিয় ছিলো একটি গ্রুপ। ব্যারিস্টার আব্দুর রাজ্জাক এই সংস্কারপন্থী নেতাদের আধ্যাত্মিক গুরু হিসেবে কাজ করছেন বলেও জানা গেছে। ব্যারিস্টার রাজ্জাক যে দলের সঙ্গে বেইমানি করবেন তা আমরা স্বপ্নেও ভাবতে পারিনি। রাজ্জাককে আজকের রাজ্জাক বানিয়েছে জামায়াত। জামায়াত প্রতিকূল অবস্থাতেও টিকে থাকবে ফিনিক্স পাখির মতো।

বিষয়টিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে জামায়াতের কেন্দ্রীয় সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান বলেন, মঞ্জুর নেতৃত্বে জামায়াত ভাঙ্গার চেষ্টায় আমরা বেশ চিন্তিত ও বিব্রত। দুধ-কলা দিয়ে কালসাপ পুষলে যা হয়, আমাদের সঙ্গে তা-ই হচ্ছে। দলীয় বিপদের দিনে যে যার ভবিষ্যৎ গড়ার পাঁয়তারায় মত্ত। দলকে জিম্মি করে ব্যক্তিস্বার্থ অর্জন করাটা বন্ধ না করলে জামায়াতকে আরো সংকটে পড়তে হতে পারে।

যদিও অভিযুক্ত মঞ্জু বলছেন ভিন্ন কথা। তিনি বলেন, ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক দল গঠন করে ধর্মের নামে গোষ্ঠীস্বার্থ উদ্ধার বন্ধ করতে এই পরিকল্পনা হাতে নিয়েছি। ধর্মকে রাজনীতির কু-প্রভাব থেকে মুক্ত রেখে নতুন উদাহরণ সৃষ্টি করতেই এই বিপদসংকুল যাত্রা শুরু করেছি।

তিনি আরো বলেন, রাজনীতি হলো গুরুমুখী বিদ্যা, সুতরাং আমাদেরও একজন গুরু থাকতে পারে- সেটি নিয়ে হৈচৈ করার কিছু নেই। আর আমরা কাউকে বিব্রত করতে এসব করছি না। কলঙ্কের রাজনীতি থেকে বের হয়ে গণমুখী রাজনীতি করার চেষ্টা নিশ্চয় অপরাধের নয়?

এই বিভাগের আরো খবর