• সোমবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৫ ১৪২৭

  • || ০৩ সফর ১৪৪২

ঝালকাঠি আজকাল
ব্রেকিং:
শীতে করোনা পরিস্থিতি অবনতির ইঙ্গিত, এখনই প্রস্তুতির নির্দেশ ব্যাংকটা যেন ভালোভাবে চলে সেদিকে দৃষ্টি দিবেন : প্রধানমন্ত্রী অফিসের সামনে নেতাকর্মীদের মাথা ফাটিয়ে আন্দোলন করে বিএনপি প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে বিভিন্ন ব্যাংকের অনুদান করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩২, শনাক্ত ১৫৬৭ দেশে-বিদেশে ইসলাম প্রচারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন আল্লামা শফী আহমদ শফী কওমি শিক্ষার আধুনিকায়নে ভূমিকা রেখেছেন : প্রধানমন্ত্রী সীমান্তহত্যা বন্ধে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দেয়ার প্রতিশ্রুতি বিএসএফের করোনায় ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৬, শনাক্ত ১৫৯৩ পেঁয়াজ আমদানিতে ৫ শতাংশ শুল্ক কমানোর চিন্তা: অর্থমন্ত্রী
৬১

কানের এসব সমস্যা অবহেলা করছেন, হতে পারেন বধির!

ঝালকাঠি আজকাল

প্রকাশিত: ৯ সেপ্টেম্বর ২০২০  

কান টানলেই নাকি মাথা আসে। কানের এতো গুরুত্ব থাকা স্বত্বেও এর সমস্যায় অবহেলা করছেন। এর প্রভাব পড়তে পারে মস্তিষ্কেও। বিভিন্ন কারণে কানের সমস্যা দেখা দেয়। বিশেষ করে যারা হেডফোন ব্যবহার করেন দীর্ঘক্ষণ। এছাড়া বাচ্চাদের ক্ষেত্রে অনলাইনে দীর্ঘক্ষণ ক্লাস করতে গিয়ে কানে হেডফোন রাখতে হচ্ছে। কানে ছত্রাকের সংক্রমণ বর্ষার মরসুমে একটু বাড়তে পারে।   

মাঝে মাঝে কানে ব্যথা, চুলকানি হয় আপনার। ঠিক হয়ে যাবে ভেবে এড়িয়ে যাচ্ছেন। কানের ছোটখাট সমস্যাগুলো এড়িয়ে যাছেন এতে করে হতে পারে মারাত্মক বিপদ। এই অবহেলার কারণেই কিন্তু কানের সমস্যা আরো বাড়ছে।

কী কী সমস্যা দেখা দিলে সতর্ক হবেন? 

> কানে ব্যথা

কান কটকট করা

কানের ভিতরে চাপ অনুভব করা বা কান ভারী লাগলে

বাচ্চাদের ক্ষেত্রে কান ফুলে যাওয়া

> কান থেকে পুঁজ

> কানে কম শোনা   

এই সমস্যাগুলো দেখা দিলে দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিন। এছাড়া হেডফোন ব্যবহারে সতর্ক হোন। উচ্চ শব্দে গান শোনা, কথা বলা আপনার কানের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। বধির হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়। ভাবছেন হেডফোন ব্যবহারে সমস্যা হব কেন। আর কীভাবেই বা তা এড়িয়ে চলবেন। জেনে নিন সেসব- 

এক টানা হেডফোন ব্যবহার করা ক্ষতিকারক।

কানে সংক্রমণ হয়েছে এমন কারো হেডফোন ব্যবহার করবেন না। আর এমনিতেও অন্যজনের হেডফোন ব্যবহার না করাই ভালো।  

নিজের ইয়ারফোনও আলাদা বাক্সে ভরে ব্যাগে বা পকেটে নিয়ে বেরতে হবে। ইয়ারফোন ব্যাগের মধ্যে ফেলে রেখে দিলে তাতে ধুলাবালি ও ব্যাকটেরিয়া বাসা বাঁধতে পারে। কানে দেয়ার সময়ে তা সহজেই কানের ভিতরে প্রবেশ করে। ফলে সংক্রমণের সম্ভাবনা থেকেই যায়।

এক কানে সংক্রমণ থেকে সংক্রমণ ছড়াতে পারে অন্য কানেও।

শ্রবণশক্তি কমলে প্রভাব পড়বে শরীরের ভারসাম্য রক্ষার ক্ষেত্রেও। কারণ শরীরের ভারসাম্য রক্ষার জায়গাটি কানেই রয়েছে।

কানে ব্যথা হলে চিকিৎসকের পরামর্শে পরিষ্কার কাপড় দিয়ে হালকা সেঁক নেয়া যেতে পারে। 

অনেক সময় গোসল করতে গেলে কানে পানি ঢুকে যায়। কানে পানি ঢুকলে কটন বাড বা আঙুল দিয়ে খুঁচিয়ে কান পরিষ্কার করার চেষ্টা করেন। এ কাজ একেবারেই করবেন না। তোয়ালের মাধ্যমে যতটা সম্ভব পানি মুছে নিন। বাকিটা এমনিতেই বেরিয়ে যাবে।

অনেকেই আছেন কানের সমস্যা হলে কটন বাড দিয়ে খোঁচাখুঁচি করেন। কানের পর্দা ফেটে ফুটো হয়ে যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে শ্রবণশক্তি হারাতে হতে পারেন চিরদিনের মতো। কানের সমস্যা থেকে জটিলতা বেড়ে মস্তিষ্কে প্রভাব পড়তে পারে। তাই কানে কিছু অস্বস্তি

ঝালকাঠি আজকাল
স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর