শুক্রবার   ০৬ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২২ ১৪২৬   ০৮ রবিউস সানি ১৪৪১

ঝালকাঠি আজকাল
১৪

উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে কুচক্রী মহল অপপ্রচার চালাচ্ছে: পলক

প্রকাশিত: ২১ নভেম্বর ২০১৯  

 


আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার সূচিত উন্নয়ন কর্মসূচি বাধাগ্রস্ত করতে একটি কুচক্রী মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যা ষড়যন্ত্রমূলক অপপ্রচার চালাচ্ছে। পদ্মাসেতু, রামু, ভোলা ও নাসিরনগরের ঘটনা, যানবাহন ও নিরাপদ সড়ক আন্দোলন ইত্যাদি থেকে শুরু করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য নিয়ে এ ধরনের মিথ্যা ষড়যন্ত্রমূলক অপপ্রচার চলছে।

বুধবার (২০ নভেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে বাংলাদেশ ডিজিটাল ওয়েজ সামিটের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক। এসময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প কর্মসূচি এখন সাফল্যের দ্বারপ্রান্তে। বর্তমানে বাংলাদেশের ১শ মিলিয়ন মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। পাশাপাশি দেশে ১শ’৬০ মিলিয়ন মানুষের কাছে মোবাইল সিমকার্ড রয়েছে। তৈরি পোশাকখাতের প্রত্যেক শ্রমিক ন্যূনতম একটি করে মোবাইলফোন ব্যবহার করছেন। এ বাস্তবতায় অল্প সময়ের ব্যবধানে সব তৈরি পোশাক শ্রমিককে ডিজিটাল ওয়েজ পেমেন্টের আওতায় আনা সম্ভব হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক আরো বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে তৈরি পোশাকখাতের ৯০ শতাংশ শ্রমিককে ডিজিটাল ওয়েজ পেমেন্টের আওতায় আনা হবে। বর্তমানে এক দশমিক পাঁচ মিলিয়ন তৈরি পোশাককর্মী এ পদ্ধতিতে মজুরি পাচ্ছেন। ডিজিটাল পদ্ধতিতে মজুরিপ্রাপ্তির ক্ষেত্রে পুরুষ শ্রমিকদের তুলনায় নারীরা পিছিয়ে রয়েছে। আর্থিক অন্তর্ভুক্তি জোরদারে নারী শ্রমিকদের ডিজিটাল পেমেন্টের আওতায় আনার ওপর অগ্রাধিকার দিতে হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী বলেন, ডিজিটাল পদ্ধতিতে কর্মসম্পাদনের ক্ষেত্রে শিল্পমন্ত্রণালয় ইতোমধ্যে অনেক দূর এগিয়েছে। ই-ফাইলিং ব্যবস্থাপনায় শিল্পমন্ত্রণালয় শীর্ষস্থান দখলকারী মন্ত্রণালয়গুলোর তালিকায় অন্যতম। রাষ্ট্রায়ত্ত চিনি-কলগুলোতে ই-পূর্জি চালুর মাধ্যমে মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসের সুযোগ কাজে লাগানো হচ্ছে।

এ-টু-আই প্রকল্পের পলিসি এডভাইজার অনির চৌধুরীর সঞ্চালনায় উদ্বোধনী অধিবেশনে প্যানেল আলোচনায় অংশ নেন আইএলও’র বাংলাদেশ কান্ট্রি ডিরেক্টর তৌমু পৌটিয়ানিন, ইউএনডিপি’র রেসিডেন্ট রিপ্রেজেন্টিটিভ সুদীপ্ত মুখার্জী, মার্কস অ্যান্ড স্পেনসারের বাংলাদেশ কান্ট্রি ম্যানেজার স্বপ্না ভৌমিক, বিজিএমইএ’র প্রেসিডেন্ট ড. রুবানা হক ও বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আহমেদ জামাল প্রমুখ।

এই বিভাগের আরো খবর