• মঙ্গলবার   ০৭ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২২ ১৪২৭

  • || ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪১

ঝালকাঠি আজকাল
১০২

অর্গানিক চিজ রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে

ঝালকাঠি আজকাল

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০১৯  

স্বাস্থ্য নিয়ে কথা বলতে গেলে চিজকে খারাপের তকমাই দেওয়া হয়। যারা ওজন কমাতে চাইছেন তাদের কাছে চিজ একেবারে আতঙ্ক। অনেকে বলেন, রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা বাড়িয়ে দিতে এবং ওজন বাড়াতে চিজের জুড়ি নেই। তবে সব চিজ ক্ষতিকারক তা কিন্তু নয়। কিছু প্যাকেটজাত চিজের মধ্যে অনেক সময় কৃত্তিম ক্ষতিকারক ফ্লেভার থাকে। যা ক্ষতিকারক। তবে অর্গানিক চিজ কোনও ক্ষতি হয় না।

মোজারেলা চিজ: বিশ্ব জুড়ে চিজের মধ্যে সব থেকে বেশি জনপ্রিয় হলো মোজারেলা। আদতে এটি ইতালিয়ান চিজ যা পাস্তা এবং পিৎজাতে বহুল ব্যবহৃত হয়। গরু, ভেড়া, মোষ বা ছাগলের দুধ থেকে এই চিজ তৈরি করা হয়। অর্গানিক মোজারেলা চিজের প্রতি ১০০ গ্রামের মধ্যে ২৮০ ক্যালোরি থাকে। এতে সোডিয়ামের মাত্রা খুব কম থাকলেও এবং প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম থাকায় ওজন কমাতে বরং সাহায্য করে।

ফেটা চিজ: আদতে একটি গ্রীসের ঐতিহ্যবাহী চিজ। এটি ভেড়া বা ছাগলের দুধ থেকে তৈরি হয়। যে কোনও রকম স্যালাড, স্যান্ডউইচ এবং পাইয়ে এর ব্যবহার রয়েছে। সামান্য লবণাক্ত এবং অল্প তিতকুটে স্বাদের এই চিজের প্রতি ১০০ গ্রামে ১৪ গ্রাম প্রোটিন এবং ২৬৪ ক্যালোরি থাকে।

কটেজ চিজ: সবথেকে স্বাস্থ্যকর চিজ হলো কটেজ চিজ। এটি এক ধরনের দইজাত চিজ যার মধ্যে দুধের ফ্লেভার থাকে। যারা ডায়েট করেন তাদের মধ্যে কটেজ চিজ খুবই জনপ্রিয়। প্রতি ১০০ গ্রাম কটেজ চিজের মধ্যে ৯৮ ক্যালোরি থাকে।

রিকোটা চিজ: রিকোটা অন্যতম স্বাস্থ্যকর চিজ। আদতে এর জন্ম ইতালিতে। ইতালিয় জলহস্তীর দুধ থেকে তৈরি হয় এই চিজ। প্রতি ১০০ গ্রাম রিকোটা চিজে ৩০ গ্রাম গ্রাম প্রোটিন এবং ১৭৪ ক্যালোরি থাকা। বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী ইতালিয় মিষ্টি পদে এর ব্যবহার রয়েছে। যেমন চিজ কেক এবং ক্যানোলিতে এর ব্যবহার হয়।

ঝালকাঠি আজকাল
স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর